শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১২:৫৩ অপরাহ্ন

আবু জাফর শামসুদ্দীন

প্র : আবু জাফর শামসুদ্দীন কবে কোথায় জন্মগ্রহণ করেন?
উ : পূর্বতন ঢাকা জেলা, বর্তমানের গাজিপুর জেলার দক্ষিণবাগ গ্রামে ১৯১১ সালের ১২ই মার্চ।
প্র : তাঁর পিতার নাম কী?
উ : মোহাম্মদ আক্কাস আলী।
প্র : তাঁর পিতামহ নাদিরুজ্জামান ভূঁইয়া কার শিষ্য ছিলেন?
উ : মওলানা কেরামত আলি জৌনপুরির শিষ্য এবং স্থানীয় প্রতিনিধি।
প্র : আবু জাফর শামসুদ্দীনের শিক্ষাজীবন কেমন ছিল?
উ : প্রাতিষ্ঠানিক উচ্চশিক্ষা তাঁর ছিল না। প্রভাত পন্ডিতের পাঠশালায় লেখাপড়া আরম্ভ করলেও মাদ্রাসা শিক্ষা তিনি গ্রহণ করেন এবং ১৯২৯ সালে হাই মাদ্রাসা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। পরে আজকের ঢাকা কলেজে ভর্তি হলেও পরীক্ষা দেন নি।
প্র : অবিভক্ত ভারতে তিনি কোন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত হন?
উ : মানবেন্দ্রনাথ রায়ের (এমএন রায়) রেডিক্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টির সঙ্গে।
প্র : পাকিস্তান আমলে তিনি কোন দলে যুক্ত হন ?
উ : আবদুল হামিদ খান ভাসানীর নেতৃত্বে ন্যাপের সঙ্গে।
প্র : তিনি কোন বিশেষ সম্মেলনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন?
উ : ঐতিহাসিক কাগমারি সম্মেলনের (১৯৫৭) প্রস্তুতি কমিটির কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক ছিলেন।
প্র : আবু জাফর শামসুদ্দীনের মূল পরিচয় কী?
উ : তিনি ছিলেন ধর্মনিরপেক্ষতা, বাঙালি জাতীয়বাদা ও সমাজতান্ত্রিক অর্থনৈতিক ব্যবস্থায় বিশ্বাসী একজন প্রগতিশীল লেখক ও সাংবাদিক।
প্র : তিনি কোন কোন পত্রিকার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন?
উ : দৈনিক ছোলতান পত্রিকার সাব-এডিটর হিসেবে কর্মজীবন শুরু। পরে দৈনিক আজাদ, ইত্তেফাক, পূর্বদেশ ও সংবাদ পত্রিকায় বিভিন্ন পদে চাকুরি।
প্র : তিনি একটি ছদ্মনামে কলাম লিখতেন, সেটা কী?
উ : দৈনিক সংবাদ পত্রিকায় আবু জাফর শামসুদ্দীন মৃত্যুর পূর্বপর্যন্ত ‘অল্পদর্শী’ ছদ্মনামে ‘বৈহাসিকের পার্শ্বচিন্তা’ শিরোনাকে কলাম খিতেন।
প্র : আবু জাফর শামসুদ্দীনের প্রথম উপন্যাসের নাম কী?
উ : পরিত্যক্ত স্বামী (১৯৪৭)। এটি তাঁর প্রকাশিত প্রথমগ্রন্থও।
প্র : তাঁর রচিত অন্যান্য উপন্যাসের নাম কী?
উ : ভাওয়ালগড়ের উপাখ্যান (১৯৬৩), পদ্মা মেঘনা যমুনা (১৯৭৪), সংকর সংকীর্তন (১৯৮০), দেয়াল (১৯৮৫)্
প্র : তাঁর রচিত গল্পগ্রন্থগুলো রনাম কী?
উ : জীবন (১৯৪৮), রাজেনঠাকুরের তীর্থযাত্রা (১৯৭৮), ল্যাংড়ী (১৯৮৪), নির্বাচিত গল্প (১৯৮৮)।
প্র : তাঁর রচিত প্রবন্ধগ্রন্ধগুলোর নাম কী?
উ : জীবন (১৯৪৮), রাজেনঠাকুরের তীর্থযাত্রা (১৯৭৮), ল্যাংড়ী (১৯৮৪), নির্বাচিত গল্প (১৯৮৮)।
প্র : তাঁর লেখায় কোন গুণটি বেশি প্রকাশিত?
উ : তাঁর লেখায় গণমানুষের সংগ্রাম ও উদার মানবতাবাদের দিকটিই মুখ্য।
প্র : কোন উপন্যাস তিনটিকে তাঁর ‘ত্রয়ী উপন্যাস’ বলে?
উ : ভাওয়ালগড়ের উপাখ্যান, পদ্মা মেঘনা যমুনা, সংকর সংকীর্তন।
প্র : তিনি কোন কোন পদক ও পুরস্কার পান?
উ : বাংলা একাডেমী পুরস্কার (১৯৬৮), সমকাল সাহিত্য পুরস্কার (১৯৭৯), একুশে পদক (১৯৮৩), মুক্তধারা সাহিত্য পুরস্কার (১৯৮৬), ফিলিপ্স পুরস্কার (১৯৮৮)।
প্র : তিনি কবে মৃত্যুবরণ করেন?
উ : ১৯৮৮ সালের ২৪শে অগস্ট।


পোস্টটি শেয়ার করুন...

© BengaliGrammar.Com
Maintenance by BengaliGrammar.Com