June 25, 2019, 4:02 am

আরজ আলী মাতুব্বর

প্র : আরজ আলী মাতুব্বর এর জন্ম তারিখ কত?
উ : ৩রা পৌষ, ১৩০৭ (১৯০০)।
প্র : তাঁর জন্মস্থান কোথায়?
উ : লামচারি গ্রাম, বরিশাল।
প্র : তিনি মূলত কী ছিলেন?
উ : দার্শনিক।
প্র : তাঁর পিতার নাম কী?
উ : এন্তাজ আলী মাতুব্বর।
প্র : তাঁর প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা কতটুকু?
উ : স্বগ্রামে মুন্সি আবুদল করিমের মক্তবে সীতানাথ বসাকের ‘আদর্শলিপি’ অধ্যয়ন এবং উত্তরকালে নিজের সাধনায় নানা বিদ্যায় পারদর্শিতা অর্জন।
প্র : তাঁর পেশা কী ছিল?
উ : বাল্যকালে পৈতৃক পেশা কৃষিকাজে নিয়োজিত। পরে জমি জরিপের কাজকেই পেশা হিসেবে গ্রহণ।
প্র : তিনি কী হিসেবে খ্যাত?
উ : লৌকিক দার্শনিক হিসেবে।
প্র : তাঁর রচনার ভাববস্তু কী?
উ : জনজীবনের চিন্তা-চেতনা।
প্র : জগৎ ও জীবন সম্পর্কে তাঁর রচনায় কীসের পরিচয় পাওয়া যায়?
উ : প্রজ্ঞা, মুক্তচিন্তা ও মুক্তবুদ্ধির।
প্র : তাঁর প্রকাশিত গ্রন্থগুলি কী কী?
উ : সত্যের সন্ধান (১৯৭৩), সৃষ্টি রহস্য (১৯৭৮) ও স্মরণিকা (১৯৮২)।
প্র : ‘অনুমান’ গ্রন্থের পরিচয় দাও।
উ : ‘রাবণের প্রতিভা’, ‘ফেরাউনের কীর্তি’, ‘ভগবানের মৃত্যু’, ‘আধুনিক দেবতত্ত্ব’, ‘মেরাজ’, ‘শয়তানের জবানবন্দি’, ‘সমাপ্তি’ এই সাতটি প্রবন্ধ সংকলিত হয়েছে আরজ আলী মাতুব্বরের ‘অনুমান’ গ্রন্থে। বইটি প্রকাশিত হয় ১৩৯০ বঙ্গাব্দের কার্তিক মাসে অর্থাৎ ১৯৮৩ সালে। এই গ্রন্থে আরজ আলী তাঁর ব্যক্তি অভিজ্ঞতা ও জ্ঞানের আলোকে ধর্ম ও সংস্কারে প্রতিষ্ঠিত কতিপয় ধারণার বিরুদ্ধে নিজস্ব মতামত ব্যক্ত করেন।
প্র : অল্প কথায় আরজ আলী মাতুব্বর সম্পর্কে কী বলা যায়?
উ : আরজ আলী মাতুব্বর বরিশালের এক দরিদ্র কৃষক পরিবারের সন্তান। সমস্ত জীবন সংগ্রাম করেছেন দারিদ্র্য এবং অন্ধ ধর্মবিশ্বাসের বিরুদ্ধে। তিনি আনুষ্ঠানিক বিদ্যাশিক্ষার সুযোগ পান নি। কিন্তু কঠিন পরিশ্রমে বিদ্যা অর্জন এবং ধর্মীয় মূঢ়তার বিরুদ্ধে দাঁড়াবার শক্তি অর্জন করেছেন। সমকালীন সরকার তাঁর রচনার বিরোধিতা করেছে, মৌলবাদীরা তাঁর কণ্ঠরুদ্ধ করতে চেয়েছে। ‘সত্যের সন্ধান’ (১৯৭৩), ‘সৃষ্টিরহস্য’ (১৯৭৮) ও ‘স্মরণিকা’ (১৯৮২) তাঁর তিনটি মূল্যবান দার্শনিক গ্রন্থ। এই অসামান্য মানুষটির রচনা সমগ্র (দুই খন্ড, ১৯৯৩, ১৯৯৫) আইয়ুব হোসেনের সম্পাদনায় প্রকাশিত হয়েছে।
প্র : তিনি স্ব-উপার্জিত অর্থে তাঁর জন্মস্থান লামচারি গ্রামে কী প্রতিষ্ঠা করেন?
উ : আরজ মঞ্জিল পাবলিক লাইব্রেরি।
প্র : তিনি কী নামে প্রাথমিক মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের বৃত্তি দেন?
উ : আরজ বৃত্তি (১৩৮৬)।
প্র : তিনি কোন কলেজকে মরণোত্তর দেহদান করেন?
উ : বরিশাল শেরেবাংলা মেডিক্যাল কলেজকে।
প্র : তিনি কী কী পুরস্কার লাভ করেন?
উ : বাংলাদেশ লেখক শিবির কর্তৃক হুমায়ুন কবির স্মৃতি পুরস্কার (১৩৮৫) ও উদীচী শিল্পী গোষ্ঠীর বরিশাল শাখা কর্তৃক বরণীয় মনীষী হিসেবে সম্মাননা (১৩৯২); এছাড়া বাংলা একাডেমী কর্তৃক নববর্ষের সংবর্ধনা জ্ঞাপন (১লা বৈশাখ, ১৩৯২)।
প্র : তাঁর মৃত্যু তারিখ কত?
উ : ১লা চৈত্র, ১৩৯২ (১৯৮৫)।


দয়া করে পোস্টটি শেয়ার করুন...

© BengaliGrammar.Com
Maintenance by BengaliGrammar.Com