September 20, 2021, 1:31 pm

প্রায় সমোচ্চারিত ভিন্নার্থক শব্দ

ড. মুহম্মদ এনামুল হক এর মতে, উচ্চারণ করতে গিয়ে দেখা যায় যে, শব্দগুলো ঠিক একরূপ নয়, কিছুটা পৃথক কিন্তু বাংলাভাষীদের মুখে অনেক সময় একই রকম উচ্চারিত হয়। এই ধরনের শব্দগুলোর মধ্যে অনেকগুলোরই মূল উচ্চারণ ছিল ভিন্ন। কিন্তু কালপ্রবাহে ভিন্নতা দূর হয়ে উচ্চারণগত ব্যবধান কমে গিয়ে বর্তমানে উচ্চারণের ক্ষেত্রে একাত্ম হয়ে গেছে। ড. সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায় এর মতে, দুই বা তাহারও বেশি শব্দ, বানানে ও অর্থে ভিন্ন হওয়া সত্ত্বে উচ্চারণে একরূপ হইলে, সেগুলোকে বলা হয় সমোচ্চারিত ভিন্নার্থক শব্দ। বানান ও অর্থ ভিন্ন হলেও বাংলা ভাষায় এমন বহু শব্দ রয়েছে। যেগুলোর উচ্চারণ প্রায় একই রকম যেমন- অর্ঘ-মূল্য, অর্ঘ্য-পূজার উপকরণ, অবদান-সৎকর্ম, অবধান-মনোযোগ। বাংলা ভাষার শব্দ বৈচিত্র্যের মধ্যে প্রায় সমোচ্চারিত ভিন্নার্থক শব্দের একটি বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। এসব শব্দ প্রয়োগের মধ্য দিয়ে ভাষার শব্দ সম্ভার বৃদ্ধি পায়। নিম্নে প্রায়-সমোচ্চারিত ভিন্নার্থক শব্দের কিছু নমুনা উল্লেখ করা হলো:

অংশ- ভাগনীবার- উড়ি ধান্য 
অংস- স্কন্ধনীর- জল
অণু- বস্তুর ক্ষুদ্রতম অংশনীরত- বিরত
অনিল- বায়ুনীরাকার- পানির আকার
অনিষ্ট- অপকারপক্ষ- পাখা
অনিষ্ঠ- নিষ্ঠাহীনপক্ষ্ম- নেত্রলোম
অনীল- যাহা নীল নহেপদ্ম- কমল
অনু- পন্ডাৎপদ্য- কবিতা
অন্ন- খাদ্যপরভৃৎ- কাক
অন্নদা- অন্নদাত্রীপরভৃত- কোকিল 
অন্নপুষ্ট- ভোজনপুষ্টপরশ্ব- পরশু
অন্য- অপরপরস্ব- পরের ধন
অন্যদা- অন্যদিনপরিচ্ছদ- পোশাক
অন্যপুষ্ট- কোকিল পরিচ্ছেদ- অধ্যায়
অপগত- দূরীভূত, অপসৃতপরিষদ- সভা, সংসদ
অপচয়- ক্ষতিপাণি- হাত
অপসৃত- দূরীকৃতপানি- জল
অবগত- জ্ঞাত, জানাপারিষদ- সভাসদ, সভ্য
অবচয়- চয়নপুৎ- নরক বিশেষ
অবদান- মহৎ কার্যপুত- পুত্র
অবদ্য- নিন্দনীয়পুরি- লুচি
অবধান- মনোযোগপুরী- নিকেতন
অবধ্য- বধের অযোগ্য পূত- পবিত্র
অবসৃত- অবসরপ্রাপ্তপৃষ্ট- জিজ্ঞাসিত
অবিরাম- অবিশ্রান্তপৃষ্ঠ- পিঠ
অবিহিত- অন্যায়প্রকার- রকম
অভিরাম- র্সুদরপ্রকৃত- যথার্থ
অভিহিত- কথিত, উক্তপ্রসাদ- অনুগ্রহ
অভ্যাশ- আবৃত্তি, নিকটপ্রাকার- প্রাচীর
অভ্যাস – চর্চা, শিক্ষাপ্রাকৃত- স্বাভাবিক
অযুগ্ম-পৃথক, জোড় নহেপ্রাসাদ- অট্টালিকা
অযোগ্য- অনুপযুক্তফাঁড়া- বিপদ আশংকা
অর্ঘ- মূল্যফাড়া- ছেঁড়া
অর্ঘ্য- পূজার উপকরণফি- প্রত্যেক
অলিক- কপালফী- বেতন
অলীক-মিথ্যাফোঁড়া- ছিদ্র বা বিদ্ধ করা
অশন-ভোজনফোড়া- ব্রণ
অশিত- ভক্তবঙ্গ- বাংলাদেশ
অশীত- উষ্ণ, শীত নহেবর্শা- ধনুক
অশীলতা- অভদ্রতাবর্ষা- বর্ষা ঋতু
অশূর- যে বীর নহেবলি- নৈবেদ্য
অশ্ব- ঘোড়াবলী- বলবান
অশ্ম- পাথরবল্লব- গোপ
অসন-নিক্ষেপবল্লভ- প্রিয়
অসিত- কৃষ্ণবসন- বস্ত্র
অসিলতা- তরবারিবাণ- শর, তীর
অসুর- দৈত্যবাণী- বাক্য
আত্ত- গৃহীত, প্রাপ্তবান- বন্যা
আত্ম- নিজবানি- পারিশ্রমিক
আদাড়- আস্তাকুঁড়বিজন- নির্জন
আদি- মূলবিত্ত- ধন
আধার- পাত্রবিদুর- ধীর, জ্ঞানী
আধি-মনঃকষ্টবিদূর- দূরবর্তী
আপণ- দোকানবিধুর- কাতর
আপন- নিজবিনা- ব্যতীত
আপ্ত- প্রাপ্ত, বিশ্বস্তবিবৃতি- বর্ণনা
আবরণ- আচ্ছাদনবিবৃত্তি- চক্রবৎ ঘূর্ণন
আবাস- বাসস্থানবিশ- কুড়ি
আভরণ- অলঙ্কারবিষ- গরল
আভাষ-আলাপ, ভূমিকাবিস- মৃণাল
আভাস-ইঙ্গিত, দীপ্তিবিস্মিত- অবাক
আর্ত- পীড়িতবিস্মৃত- যা মনে নেই
আশা-আকাক্সক্ষাবীজন- বাতাস দেওয়া
আশি- অশীতি (৮০)বীণা- বাদ্যযন্ত্র
আশী- সাপের বিষদাঁতবৃত্ত- গোলক
আষাঢ়- বাংলা মাস বিশেষ বেদ- গ্রন্থ বিশেষ 
আসা- আগমনবেধ- গভীরতা
আসার- বৃষ্টি, জলকণাব্যঙ্গ- বিদ্রুপ
আসি- আগমন করিব্যসন- দোষ, নেশা
আহুতি- হোমভজন- আরাধনা
আহূতি- আহবানভঞ্জন- নিবারণ 
ইতি- শেষ, অবসানভাণ- ছল
ঈতি- ছয় প্রকার শস্য- বিঘ্নভান- দীপ্তি, শোভা
ঈশ- ঈশ্বরভারা- উচ্চস্থানে কাজ করার মাচা
ঈষ- লাঙ্গলদণ্ডভারা- মাশুল
উৎপত- পাখিভাষ- কথা
উৎপথ- কুপথভাষণ- উক্তি
উদ্ধত-অবিনীতভাস- দীপ্তি
উদ্যত- প্রবৃত্তভাস্বান- দীপ্তিযুক্ত
উপাদান- উপকরণভুঞ্জন- ভোগ করা
উপাধান-বালিশভোজন- আহার
ঋত- কাতরমড়ক- মহামারি
ঋতি- গতিমণ- চল্লিশ সের
এ কথা- এই কথামতি- বুদ্ধি, মন
একতা- ঐক্য মন- চিত্ত
একদা- এককালে মহিত- পূজিত
একধা- এক প্রকারেমাষ- মাষকলাই
এণ- কৃষ্ণসার মৃগমাস- ত্রিশ দিন
এন- দোষ, পাপমিলন- সংযোগ
ওড়- জবাফুলমীলন- মুদ্রণ 
ওর- অস্তমুখ- বদন
ওষধি- একবার ফল দিয়ে যে বৃক্ষ মরিয়া যায়মুখপত্র- ভূমিকা
ঔষধি- ভেষজ উদ্ভিদমুখপাত্র- প্রতিনিধি
কটি- কোমরমুখ্য- প্রধান
কতক-কিছুমূক- বোবা
কথক-বক্তামূর্খ- জ্ঞানহীন
কপাল- ললাটদেশমেদ- চর্বি
কপোল- গণ্ডদেশমেধ- যজ্ঞ
কমল- পদ্মমোড়ক- আচ্ছাদনী 
করি- আমি সম্পন্ন করিমোতি- মুক্তা
করী- হস্তীমোহিত- মুগ্ধ
কালি- লিখিবার কালিযজ্ঞ- যাগ, উৎসব
কালী- হিন্দুদের দেবীযতি- উচ্চারণে বিরাম
কীর্তিবাস- যশস্বীযতি- ছেদ, বিরাম
কুজন- খারাপ লোকযতী- মুনি, জিতেন্দ্রিয় 
কুট- পর্বতশৃঙ্গযব- শস্য বিশেষ
কুল- বংশ, ফল বিশেষযমক- যমজ
কুশাসন-কুশ নির্মিত আসনযাম- প্রহর
কু-শাসন-খারাপ শাসনযুগ- কাল, আমল
কূজন- পাখির রবযূত- যুক্ত
কূট- জটিলযূথ- পশুপক্ষীর দল
কূল- তীর, কিনারাযোগ- মিলন
কৃত -প্রস্তুতযোগ্য- উপযুক্ত
কৃতদাস- ভৃত্যে পরিণতরচক- রচয়িতা
কৃতি- কার্যরত- মগ্ন
কৃতি- যশস্বীরতি- আসক্তি
কৃত্তিবাস- মহাদেবরথ- শকট
কোটি- ক্রোররথী- রথারোহী
কোমল- নরমরশনা- কটিভূষণ
ক্রীত- কেনারশি- দড়ি
ক্রীতদাস-কেনা গোলামরশ্মি- কিরণ
ক্রুদ্ধ- রাগান্বিতরসনা- জিহ্বা
ক্রুর- নিষ্ঠুররাঁধা- রন্ধন
ক্রোড়- কোলরাধা- রাধিকা
ক্রোর- কোটিরিক্ত- শূন্য
ক্ষুব্ধ- দু:খিতরিক্থ- সম্পদ
ক্ষুর- কামাইবার অস্ত্র বিশেষরীত- প্রথা
খড়- তৃণরীতি- প্রথা
খর- তীব্ররীতি-প্রথা
খাট- খাটিয়া, চারপায়ারু´- স্বর্ণ
খাটো- বেঁটে, খর্ব, নগণ্য, অনুচ্চরুক্ষ- কর্কশ
খুদ- চাউলের কণারুদ্র- উগ্র, শিব
খুর- গরু, ঘোড়ার পায়ের খুররোচক- উপভোগ্য
খোদ- স্বয়ংরৌদ্র- সূর্যকিরণ
গাদা- রাশিলক্ষ- লাখ, দৃষ্টি
গাধা- গর্দভলক্ষণ- চিহ্ন
গিরিশ- মহাদেবলক্ষ্মণ- রামানুজ
গিরীশ- হিমালয়লক্ষ্য- উদ্দেশ্য
গুড়- মিষ্টদ্রব্য বিশেষলুঠন- গড়াগড়ি
গুণ- ধর্ম, ভাব, দড়িলুণ্ঠন- লুটতরাজ
গুন- চট, চটের থলিশকল- খন্ড
গুলি- অনেকশকৃৎ- বিষ্ঠা
গুলী- গোলাশক্ত- সমর্থ, কঠিন
গূঢ়- গুপ্ত, গভীরশঙ্কর- শিব
গোঁড়া- অন্ধভক্তশঠ- প্রবঞ্চক
গো-কুল- গরু জাতিশতী- শতযুক্ত
গোকুল- বৃন্দাবনশন- তৃণবিশেষ
গোচর- প্রত্যক্ষশপ্ত- অভিশপ্ত
গো-চর-গরু চরার স্থানশম- শান্তি
গোড়া-মূল বা নিুভাগশমন- যম
গোর- সমাধিশমি- শাঁই গাছ
গোলক- গোলাকার বস্তুশমী- শান্ত
গোলোক- স্বর্গ, বৈকুণ্ঠশয্যা- বিছানা
ঘুরা- ঘুরাফিরা করাশর- তীর, বাণ 
ঘোড়া- অশ্বশরণ- আশ্রয়
ঘোর-ঘনশরল- দেবদারু বৃক্ষ
চতুষ্পথ- চৌমাথাশর্ব- শিব
চতুষ্পদ- চার পদ- বিশিষ্টশসা- ফল বিশেষ
চাল- ঘরের চাল শাদ- শষ্প, কচি ঘাস
চাল- চাউল শাদি- বিবাহ
চাষ-কৃষিশান্ত- ধীর, শিষ্ট
চাস- পাখির নামশার- নানাবর্গ
চিত- চয়ন করা হয়েছে যাশারদা- দুর্গা, সারদা, সরস্বতী
চিত্ত- মনশিকড়- বৃক্ষের মূল
চিত্য- অগ্নিশিকার- মৃগয়া
চির-দীর্ঘশিল- নুড়ি, পাথর
চীর- ছিন্নবস্ত্রশীকর- জলকণা
চূত- আম্রফলশীত- শীতকাল, ঠান্ডা
চ্যুত- ভ্রষ্ট, স্খলিতশীল- চরিত্র
ছাঁদ- আকৃতি, গঠনশুক- টিয়াপাখি
ছাড়- ত্যাগশুক্তি- ঝিনুক
ছাদ- ছাতশুচি- শুদ্ধ
ছার- অধমশূক- শুঁয়া
ছোড়া- তরুণ বালকশূকর- জন্তু বিশেষ
ছোরা- বড় চাকুশূর- বীর
জড়- অচেতনশ্বশ্রু- শাশুড়ি
জব- বেগশ্মশ্রু- দাড়ি
জমক- সমারোহশ্যাম-কৃষ্ণ
জলা- জলময় নিুভূমিশ্যেন- বাজপাখি
জানু- হাঁটুশ্রবণ- শোনা
জাম- ফল বিশেষশ্রুতি- শ্রবণ
জাল- ফাঁদ, নকলষট্ – ছয়
জালা- বড় পাত্রসংকর- মিশ্রণোৎপন্ন
জোড়- যুগলসকথি- উরু
জোর- শক্তিসকল- সমস্ত
জ্বর- রোগ বিশেষসকৃৎ- একবার
জ্বলা- দগ্ধ হওয়াসক্ত- আসক্ত
জ্বাল- অগ্নিশিখাসজ্জা- পোশাক
জ্বালা- যন্ত্রণাসতী- সাধ্বী
জ্যেষ্ঠ- অগ্রজসত্ত্ব – গুণের নাম
জ্যৈষ্ঠ- মাস বিশেষসত্য- যথার্থ
জ্যোতি- দীপ্ত, আলোসন- বৎসর
ঝাড়া- নাড়া দেওয়াসপত্নী- সতীন
ঝানু- পাকা, চতুরসপ্ত- সাত
ঝারা- সচ্ছিদ্র পাত্রসবিতৃ- সূর্য
ঝুড়ি- চাঙারিসবিত্রী- জননী
ঝুরি- বটগাছ ইত্যাদির জটাসম- সমান
টিকা-রোগ-নিবারক বীজ প্রয়োগসমন- আদালতের ডাক
টীকা- সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যাসম্প্রতি-অধুনা
টেকা- স্থায়ী হওয়াসম্প্রীতি(সদ্ভাব
টেক্কা- এক ফোঁটা বিশিষ্ট তাসসম্বর- সংবরণ
তড়িৎ- বিদ্যুৎসর- দুধের সারাংশ
তত্ত্ব – গূঢ় অর্থসরণ- পথ, ধারা
তথ্য- সংবাদসরদা- খরমুজ জাতীয় ফল 
তদীয়- তাহারসরল- ঋজু
তন্ত্র – বীণার তারসর্গ- অধ্যায় 
তন্ত্রী- তাঁত, বীণাসর্ব- সকল
তপসী- ছোট মাছ বিশেষসলিল- জল
তপস্বী- যে তপস্যা করেসহিত- সঙ্গে
তরণি- নৌকাসাক্ষর- অক্ষর সংবলিত
তরুণী- যুবতীসাদী- অশ্বারোহী
তুলা- কার্পাস, শিমুল প্রভৃতি ফলের আঁশসান্ত- সসীম
তোলা- উত্তোলন করা সাম-গান, বেদমন্ত্র
ত্বদীয়- তোমারসামি- অর্ধেক
ত্বরিত- দ্রুতসার- নির্যাস
দর্প-গর্ব, অহঙ্কারসার্থ- অর্থযুক্ত, বণিকদল 
দর্ভ- তৃণসিক্ত- ভিজা
দাঁড়ি- বিরাম চিহ্নসিক্থ- মোম
দাঁড়ী- যে নৌকার দাঁড়া টানেসিত- শ্বেত
দাড়ি- শ্মশ্রুসিতা- চিনি
দাপ- দাপট, দর্পসীতা- রামের স্ত্রী
দারা- পত্নীসুকর- সুসাধ্য
দিন- দিবসসুত- পুত্র
দিনেশ- সূর্যসুতা- কন্যা
দীন- দরিদ্রসুদ- কুসীদ
দীনেশ- দরিদ্রের প্রভুসুর- গানের সুর, দেবতা
দীপ- প্রদীপসূক্তি- ভাল কথা
দীপ্ত- উজ্জ্বলসূত- জাত
দূত- সংবাদ বাহকসূতা- সূত্র
দৃপ্ত- বলিষ্ঠসূদ- পাচক
দেশ- রাজ্যসূর- সূর্য
দ্বারা- কর্তৃকসেন- হিন্দুদের উপাধি
দ্বিপ- হস্তী স্কন্দ- কার্তিকেয়
দ্বীপ- জলবেষ্টিত স্থলস্কন্ধ- কাঁধ
দ্বেষ- হিংসাস্তম্ব- তৃণাদির ডাঁটা
দ্যূত- পাশাদি দ্বারা জুয়াখেলা স্তম্ভ- থাম
ধনী-ধনবানস্বত্ব – স্বামিত্ব
ধরা- ধারণ করাস্বপত্নী- নিজপত্নী
ধরা- পৃথিবীস্বর- আওয়াজ
ধাতৃ- বিধাতাস্বর্গ- অমরলোক
ধাত্রী- ধাইমাস্বসা- ভগিনী 
ধাপ- সিঁড়ির পইঠাস্বহিত- আত্মকল্যাণ
ধ্বনি-শব্দস্বাক্ষর- সহি, দস্তখত
নব- নতুনস্বাদ- আস্বাদ
নভ- আকাশস্বামী- প্রভু
নাড়ি- ধমনীস্বার্থ- নিজ প্রয়োজন
নারী- স্ত্রীলোকস্বীকার- অঙ্গীকার
নিদান- অন্তিমস্মর- কামদেব
নিধান- আধারস্মরণ- স্মৃতি
নিবার- বারণ, নিষেধস্রবণ- ক্ষরণ
নিবৃত্ত- বিরতস্রুতি- ক্ষরণ
নিভৃত- গোপনহরতাল- ধর্মঘট
নিরত- নিযুক্তহরিতাল- পক্ষীবিশেষ
নিরশন- উপবাসহর্ম- হাই তোলা 
নিরসন- দূরীকরণহর্ম্য- অট্টালিকা
নিরস্ত- ক্রান্তহাঁড়ি- পাত্র
নিরস্ত্র- অস্ত্রহীনহাঁফ- নি:শ্বাস
নিরাকার- আকারহীনহাড়- অস্থি
নিরাশ- আশাহীনহাড়ি- নিুবর্ণের হিন্দু
নিরাস- দূর করাহাফ- অর্ধ
নির্জর- দেবতাহার- পরাজয় 
নির্ঝর- ঝরনাহুতি- হোম
নিশিত- ধারালহূতি- আহ্বান
নিশীথ- গভীর রাত্রিহৃতি- হরণ
নীড়- পাখির বাসাহোতা- যজ্ঞের পুরোহিত
হোথা- ওখানে

তথ্যসূত্র: পুরাতন বইয়ের দোকান/লাইব্রেরি হতে বিভিন্ন লেখকের বাংলা ব্যাকরণ বই সংগ্রহ করে তা এখানে লিপিবদ্ধ করা হয়েছে।


পোস্টটি শেয়ার করুন...
© BengaliGrammar.Com
Maintenance by BengaliGrammar.Com