July 17, 2019, 4:37 am

বাংলাদেশের সাহিত্যিকদের পরিচিতি : উপন্যাস

অদ্বৈত মল্লবর্মণ : তিতাস একটি নদীর নাম (১৯৫৬)
আকবর হোসেন : অবাঞ্ছিত (১৯৫০), দুষ্টক্ষত (১৯৮৯), কি পাইনি (১৯৫২), মোহমুক্তি (১৯৫৩), ঢেউ জাগে (১৯৬১), দু’দিনের খেলাঘরে (১৯৬৫), আলোছায়া (১৯৬৪), মেঘ-বিজলী বাদল (১৯৬৮), নতুন পৃথিবী (১৯৭৪), আভা ও তার প্রথম পুররুষ (১৯৮৮)
আকিমুন রহমান : রক্তপুঁজে গেঁথে যাওয়া মাছি (১৯৯৯), পুররুষের পৃথিবীতে এক মেয়ে (১৯৯৭), জীবনের রৌদ্রে উড়েছিলো কয়েকটি ধূলিকণা (২০০৪)
আখতাররুজ্জামান ইলিয়াস : চিলেকোঠার সেপাই (১৯৮৬), খোয়াবনামা (১৯৯৬)
আতা সরকার : তিতুর লেঠেল (১৯৮৭), আপন লড়াই (১৯৮৮), একদা অনঙ্গ বৌ (১৯৯০), চারদিক বৃষ্টি (১৯৯০), সোনাই সরদারের ঢাকা অভিযান (২০০৩) এবং বালিকা বিষয়ক পাপ
আনিস চৌধুরী : প্রশ্ন জাগে (১৯৫১), শখের পুতুল (১৯৬১), সৌরভ (১৯৬৮), মধুগড় (১৯৭৪), ঐ রকম একজন (১৯৮৬)
আনিসুল হক : ফাল্গুনের রাতের আঁধারে (১৯৯৯), আয়েশামঙ্গল (১৯৯৮), নিধুয়া পাথারে (১৯৯৯), আবার তোরা কিপ্টে হ (২০০৪), একাকী একটি মেয়ে (২০০৪), ক্ষুধা ও ভালোবাসার গল্প (২০০৪), প্রিয় চার উপন্যাস (২০০৪), মনে রেখ প্রিয় পাতা (২০০৪), মা, যারা ভোর এনেছিল
আনোয়ার পাশা : নীড় সন্ধানী (১৯৬৮), নিষুতি রাতের গাথা (১৯৬৮), রাইফেল রোটি আওরাত (১৯৭৩)
আনোয়ারা সৈয়দ হক : কার্নিসে ঝুলন্ত গোলাপ (২০০৫), নরক ও ফুলের কাহিনী (২০০৬), উদয় মিনাকে চায় (২০০৪), সেই প্রেম সেই সময় (২০০৪)
আফসান চৌধুরী : বিশ্বাসঘাতকগণ (১৯৯৩)
আবদুল গাফফার চৌধুরী : চন্দ্রদ্বীপের উপাখ্যান (১৯৫২), নাম না জানা ভোর (১৯৬২), শেষ রজনীর চাঁদ (১৩৬৮), নীল যমুনা (১৯৬৪)
আবদুল মান্নান সৈয়দ : পরিপ্রেক্ষিত দাসদাসী (১৯৭৪), পোড়ামাটির কাজ (১৯৮২), অ-তে অজগর (১৯৮২), হে সংসার হে লতা (১৯৮২), গভীর গভীরতর অসুখ (১৯৮৩)
আবু ইসহাক : সূর্য-দীঘল বাড়ি (১৯৫৫), পদ্মার পলিদ্বীপ (১৯৮৬), জাল (১৯৮৮)
আবু জাফর শামসুদ্দীন : পরিত্যক্ত স্বামী (১৯৪৭), মুক্তি (১৯৪৮), প্রপঞ্চ (১৯৮০), দেয়াল (১৯৮৬), ভাওয়ালগড়ের উপাখ্যান (১৯৯৩), পদ্মা মেঘনা যমুনা (১৯৭৪), সংকর সংকীর্তন (১৯৮০)
আবুবকর সিদ্দিক : জলরাক্ষস (১৯৮৫), খরাদাহ (১৯৮৭), একাত্তরের হৃদয়ভষ্ম (১৯৯৪), বারুদপোড়া প্রহর (১৯৯৬)
আবু রুশ্দ : এলোমেলো (১৩৫৩), সামনে নূতন দিন (১৯৫৬), ডোবা হল দীঘি, অনিশ্চিত রাগিণী (১৯৬৯), নোঙর (১৯৬৭), স্থগিত দ্বীপ (১৯৭৪)
আবুল খায়ের মুসলেহউদ্দিন : বাতাসীর প্রেমকথা (১৯৮৪), দুঃস্বপ্নের জলপায়রা (১৯৮৪), বাগদত্তা (১৯৮৬), টাকার গাছ (১৯৮৬), রেবার প্রেমকথা (১৯৮৬), ঝর্না ঝরেরে (১৯৮৬), ফুলবানু (১৯৮৭), ফেরারী (১৯৮৭), যুগলবন্দী (১৯৮৭), এখানে নোঙ্গর (১৯৮৮), রংমহল (১৯৮৯), অসতী (১৯৯০), নীলাম্বরী (১৯৯৩), কেনিকারও মেন্ডিস (১৯৯৪), ঘাসফুল (১৯৯৫), কালো কফিন (১৯৯৫), মেধাবী মেয়ে (১৯৯৬)
আবুল ফজল : চৌচির (১৯২৭), প্রদীপ ও পতঙ্গ (১৯৪০), সাহসিকা (১৯৪৬), জীবন পথের যাত্রী (১৯৪৮), রাঙা প্রভাত (১৯৫৭), পরাবর্তন (১৯৮০)
আবুল মনসুর আহমেদ : জীবন-ক্ষুধা (১৯৫৫), সত্যমিথ্যা (১৯৫৩), আবে হায়াত (১৯৬৮)
আবুল হাসানাত : বিহঙ্গ মন (১৯৭০), দীপিত অরণ্য (১৯৭৫), না সুখ না দুঃখ (১৯৭৬), একজন বৃদ্ধের দীর্ঘশ্বাস (১৯৯৪), মুক্তিযুদ্ধের পাঁচালী (১৯৯৭)
আল মাহমুদ : উপমহাদেশ (১৯৯৩), কবি ও কোলাহল, আগুনের মেয়ে (১৯৯৫), কাবিলের বোন (১৯৯৩), ডাহুকী (১৯৯২), নিশিন্দা নারী (১৯৯৫), পুরুষ সুন্দর
আলাউদ্দিন আল আজাদ : তেইশ নম্বর তৈলচিত্র (১৯৬০), কর্ণফুলী (১৯৬২), ক্ষুধা ও আশা (১৯৬৪), পুরুদ্রুজ (১৯৮৪), শীতের শেষ রাত বসন্তের প্রথম দিন (১৯৬২), খসড়া কাগজ (১৯৮৬), পাটরাণী (১৯৮৬), শ্যামল ছায়ার সংবাদ (১৯৮৬), জ্যোৎস্নার অজানা জীবন (১৯৮৬), যেখানে দাঁড়িয়ে আছি (১৯৮৬), অপর যোদ্ধারা (১৯৯১), স্বাগতম ভালবাসা (১৯৯১), ক্যামেলিয়া (১৯৯১), অনূদিত অন্ধকার (১৯৯১), ধানমন্ডি উপাখ্যান (১৯৯১), ক্যাম্পাস (১৯৯৪), মাটির সন্তন (১৯৯১), জন্মদাতা ১ম পর্ব, অপর যোদ্ধারা (১৯৯২), পুরানা পল্টন (১৯৯২), অন্তরীক্ষ বৃক্ষরাজী (১৯৯২), প্রিয় প্রিন্স (১৯৯৫), স্বপ্নশিলা (১৯৯২), কালো জ্যোৎস্নায় চন্দ্রমল্লিকা (১৯৯৬), বিশৃঙ্খলা (১৯৯৭), ঠিকানা ছিলো না (১৯৯৮), তোমাকে যদি না পাই (১৯৯৮), হলুদ পাতার ঘ্রাণ (১৯৯৯), কায়াহীন ছায়াহীন (১৯৯৯), শ্রেষ্ঠ উপন্যাস (১৯৯৯)
আহমদ ছফা : সূর্য তুমি সাথী (১৯৬৭), ওঙ্কার (১৯৭৫), একজন আলী কেনানের উত্থান পতন (১৯৮৮), মরণবিলাস (১৯৮৯), অলাতচক্র (১৯৯৩), গাভীবৃত্তান্ত (১৯৯৫), অর্ধেক নারী অর্ধেক ঈশ্বরী (১৯৯৬), পুষ্প বৃক্ষ এবং বিহঙ্গ পুরাণ (১৯৯৬)
আহসান হাবীব : অরণ্য নীলিমা (১৯৬২)
ইমদাদুল হক মিলন : দুঃখ কষ্ট (১৯৮২), ও রাধা ও কৃষ্ণ (১৯৮২), এক দেশ (১৯৮৩), প্রিয় নারী জাতি (১৯৮৪), সুন্দরী কমলা (১৯৮৫), ভালোবাসার পাশেই (১৯৮৯), কালোঘোড়া (১৯৮৩), উপনায়ক (১৯৯০), নদী উপাখ্যান (১৯৮৫), ভূমিপুত্র (১৯৮৫), কালাকাল (১৯৮৫), অভিমান পর্ব (১৯৮৬), দিনগুলি (১৯৮৬), পরবাস (১৯৮৭), নির্বাচিত প্রেমের উপন্যাস (১৯৮৭), নায়ক (১৯৮৮), মেয়ে মানুষ (১৯৮৮), প্রতিনায়িকা (১৯৮৮), দ্বিতীয় প্রেম (১৯৮৮), দুজনে (১৯৮৮), ভালোবাসার নির্বাচিত উপন্যাস (১৯৮৯), বালকের অভিমান (১৯৮৯), সম্পর্ক (১৯৮৯), সারাবেলা (১৯৮৮), যৌবনকাল (১৯৮৮), ভূমিকা (১৯৮৮), রূপনগর (১৯৮৮), কথাছিলো (১৯৮৮), বনমানুষ (১৯৮৯), পরকীয়া (১৯৮৯), সখা তুমি (১৯৮৯), আজকের দেবদাস (১৯৮৯), হে বন্ধু হে প্রিয় (১৯৮৯), প্রিয় বা প্রিয়তম (১৯৮৯), স্বামীস্ত্রী (১৯৮৯), ছোট ছোট দীর্ঘশ্বাস (১৯৮৯), প্রেমে বিরহে (১৯৮৯), মহাযুদ্ধ (১৯৮৯), ভালবাসা ভালো নয় (১৯৮৯), তুমি কেমন আছো (১৯৮৯), দেখা হবে (১৯৮৯), স্বপ্ন (১৯৮৯), এক বোন পারুল (১৯৮৯), রাজনৈতিক উপন্যাস (১৯৮৯), দ্বিতীয় পর্বের শুরু (১৯৮৯), আমার মেয়ের সংসার (১৯৮৯), যতদূরে যাই (১৯৮৯), কোন কাননের ফুল (১৯৯০), যাবজ্জীবন (১৯৯০), সে আমার (১৯৯০), প্রিয়জন (১৯৯০), অদ্বিতীয়া (১৯৯১), ছেলেমানুষি (১৯৯০), বলো তারে (১৯৯০), বহুদূরে (১৯৯০), রাজাকারতন্ত্র (১৯৯০), পিঞ্জর (১৯৯১), অপহরণ (১৯৯১), শ্রেষ্ঠ উপন্যাস (১৯৯১), লাইলী (১৯৯১), সুদূরতমা (১৯৯১), মায়াবিনী (১৯৯১), যাও তুমি ফিরে (১৯৯১), বিরহী (১৯৯১), বিচ্ছেদ (১৯৯১), রূপ (১৯৯১), মুক্তিযুদ্ধের উপন্যাস (১৯৮৯), নূরজাহান (১ম পর্ব : ১৯৯৫), পলাশ ফুলের নোলক (২০০৪), বন্ধুয়া (২০০৪), পরাধীনতা (২০০৪) মাটি ও মানুষের উপাখ্যান, তুমিই (২০০৫), একা (২০০৫), পর (২০০৬)
ইসহাক চাখারী : পরাজয় (১৯৫৪), মায়ের কলঙ্ক (১৯৬২), মেঘবরণ কেশ (১৯৫৫?)
কায়েস আহমেদ : দিনযাপন (১৯৮৬), নির্বাসিত একজন (১৯৮৬)
খালেদা এদিব চৌধুরী : অরণ্যের ক্যানভাস (১৯৮৫), তোমার পতাকা যারে দাও (১৯৮৮), মা (১৯৯১), অগ্নি যাহা করেনি দাহ (২০০৪)
জসীম উদ্দীন : বোবা কাহিনী (১৯৬৪), বউটুবানীর ফুল (১৯৯০)
জহির রায়হান : শেষ বিকেলের মেয়ে (প্র. প্র. ১৩৬৭) হাজার বছর ধরে (১৩৭১), আরেক ফাল্গুন (১৩৭৫), বরফ গলা নদী (১৩৭৬), আর কতদিন (১৩৭৭), তৃষ্ণা (১৩৮২), কয়েকটি মৃত্যু (১৩৮২)
জুবাইদা গুলশান আরা : অশ্ররুনদীর ওপারে (১৯৮৯), বিষাদ নগরে যাত্রা (১৯৯২), ধলপহরের আলো (১৯৮২), দেওদানবের মালিকানা (১৯৮৫), প্রমিথিউসের আগুন (১৯৮৭), ছোঁবুড়ির দৌড়, ঘৃণার জঠরে জন্ম (১৯৮৮), ঊষারাগ (১৯৯০), ঘাসের উপরে মুখ রেখে (১৯৯১), অবিনাশী জলধারা (১৯৯১), দুঃখের হাত ধর (১৯৯১)
জুলফিকার মতিন : সাদা কুয়াশার পাখি (১৯৮৯), রৌদ্রছায়া ভালবাসা (১৯৯০), বাড়ির নাম পান্থশালা (১৯৯০), মানব মানবী (১৯৯৬)
ঝর্ণাদাস পুরকায়স্থ : বন্দীদিন বন্দীরাত্রি (১৯৭৬), সারেংগীওয়ালা (১৯৮৫), যমুনার হোলি খেলা। কিশোর উপন্যাস : তুতু আর টুনটুনের গল্প (১৯৯১), ডালির মেঘ পুতুল (১৯৯৩), ইভানের কাজলাদিদি (১৯৯৪), টুসি আমার টুসি (১৯৯৫), মুশকিল আসান মামা (১৯৯৫), রং মাখা শার্ট (১৯৯৫), লালুর মুক্তিযুদ্ধ (১৯৯৭)
তসলিমা নাসরিন : অপরপক্ষ (১৯৯২), শোধ (১৯৯২), ভ্রমর কইও গিয়া (১৯৯৩), লজ্জা (১৯৯৩), আমার মেয়েবেলা (১৯৯৯), উতলা হাওয়া (২০০২)
তাসাদ্দুক হোসেন : মহুয়ার দেশে (১৯৫৯), ইস্পাত প্রত্যয় (১৯৮০), পৃথিবীর রং (১৩৬৭), কৌণিক (১৯৮৮), তিমিরাভিসার
দিলারা হাশেম : ঘর মন জানালা (১৯৬৫), একদা ও অনন্ত (১৯৭৫), স্তব্ধতার কানে কানে (১৯৭৭), আমলকীর মৌ (১৯৭৮), বাদামী বিকেলের গল্প (১৯৮৩), কাকতালীয় (১৯৮৫), মিউর‌্যাল (১৯৮৬), শঙ্খকরাত (১৯৯৫), অনুক্ত পদাবলী (১৯৯৮), সদর অন্দর (১৯৯৮), সেতু (২০০০)
নাসরীন জাহান : উড়ুক্কু (১৯৯৩), সোনালী মুখোশ (১৯৮৬), উড়ে যায় নিশিপক্ষী (১৯৯৯), চন্দ্রের প্রথম কলা (১৯৯৪), যখন চারপাশের রাস্তার বাতিগুলো নিভে আসছে (১৯৯৫), লি (১৯৯৭), বৈদেহী (১৯৯৭), চন্দ্রলেখার জাদুবিস্তার, অন্যতমা অন্যদিকে যায়, আকাশে অনেক রাত (২০০৪), দূর পৃথিবীর গন্ধে (২০০৪), সামান্তা (২০০৫), মৃত্যুসখীগণ (২০০৬)
নীলিমা ইব্রাহীম : বিশ শতকের মেয়ে (১৯৫৯), এক পথ দুই বাঁক (১৯৫৮), কেয়াবন সঞ্চারিণী (১৯৬২), বহ্নিবলয় (১৯৮৫)
পান্না কায়সার : মুক্তিযুদ্ধের আগে ও পরে (১৯৯১), মুক্তি (১৯৯২), নীলিমায় নীল (১৯৯২), হৃদয়ে বাংলাদেশ (১৯৯৩), মানুষ (১৯৯৪), অন্য কোনখানে (১৯৯৪), তুমি কি কেবলি ছবি (১৯৯৪), রাসেলের যুদ্ধযাত্রা (১৯৯৪), দাঁড়িয়ে আছ গানের ওপারে (১৯৯৪), আমি (১৯৯৪), না পান্না না চুনি (১৯৯৫), অন্যরকম ভালোবসা (১৯৯৫), সূর্যসাক্ষী (১৯৯৩)
বিপ্রদাশ বড়ুয়া : অচেনা (১৯৮৫), সমুদ্রচর ও বিদ্রোহীরা (১৯৯০), ভয় ভালবাসা ও নির্বাসন (১৯৮৮), মুক্তিযোদ্ধারা, ভেতরে একজন কাঁদে, শ্রমণ গৌতম (১৯৯৬), আমি তোমার কাছে সমুদ্রের একটি ঢেউ জমা রেখেছি (১৯৯৭)
বুলবুল চৌধুরী : জলটুঙ্গী (১৯৯৫), কহ কামিনী (১৯৯৫), পাপপুণ্যি (১৯৯৫), ঘরবাড়ি (১৯৯৬), বল কি অনুভব (১৯৯৬), দম্পতি (১৯৯৭)
বেদুঈন সামাদ : বেলাশেষে (১৯৫৬), নিষ্পত্তি (১৯৫৭), দুই নদী এক ঢেউ (১৯৬০), পথে যেতে যেতে (১৯৬৩), ধুমনগরী (১৯৬৪), শুনি সেই পদধ্বনি (১৯৭০), নিবিড় ঘন আঁধারে (১৯৭৫), যোগাযোগ (১৯৯৬), যুগের হাওয়া (১৯৯৭)
ভাস্কর চৌধুরী : স্বপ্ন পুররুষ (১৯৯৮), মীমাংসা পর্ব (১৯৯৮), লাল মাটি কালো মানুষ (১৯৯৬)
মইনুল আহসান সাবের : পাথর সময় (১৯৮৯), মামুলী ব্যাপার (১৯৮৪), আদমের জন্য অপেক্ষা (১৯৮৬), পরাজয় (১৯৯০), কেউ জানে না (১৯৯০), মানুষ যেখানে যায় না (১৯৯০), সতের বছর পর (১৯৯১), কবেজ লেঠেল (১৯৯২), মামুলি ব্যাপার (১৯৮৪), আগামী দিনের গল্প (১৯৮৭), এসব কিছুই না (১৯৯১), এক রাত (১৯৯১), কোনো একদিন (১৯৯১), অচেনা জায়গা (১৯৯১), এ জীবন (১৯৯১), সীমাবদ্ধ (১৯৯১), অপরাজিতা (১৯৯১), ঋষি ও নারী (২০০৫)
মকবুলা মনজুর : কালের মন্দিরা (১৯৯৭), আর এক জীবন (১৯৬৮), বাউল বাতাস, এইখানে কখনো, জলরং ছবি (১৯৮৪), অবসন্ন গান (১৯৮২), বৈশাখে শীর্ণ নদী (১৯৮৩), আত্মজ ও আমরা (১৯৮৮), অচেনা নক্ষত্র (১৯৯০), পতিতা পৃথিবী (১৯৮৯), প্রেম এক সোনালী নদী (১৯৮৯), শিয়রে নিয়ত সূর্য (১৯৮৯), কনে দেখা আলো (১৯৯০), নদীতে অন্ধকার (১৯৯৬), লীলা কমল (১৯৯৬), নির্বাচিত প্রেমের উপন্যাস (ররুনা প্রকাশনী (১৯৯৩)
মঞ্জু সরকার : নগ্ন আগন্তুক (১৯৮৪), তমস (১৯৮৪), প্রতিমা উপাখ্যান (১৯৯০), আবাসভূমি (১৯৯৪), টান (১৯৯৬), দাঁড়াবার জায়গা (১৯৯৪), ভাঙনের সময় ভালোবাসা (১৯৯৫), অমৃতা (১৯৯৫), স্বপ্নচোর (১৯৯৭)
মাহবুব তালুকদার : ক্রীড়নক (১৯৬৯), অবতার (১৯৭৩), অপলাপ (১৯৮৫), আরেকজন আমি (১৯৮৭), পলাশ ও শিমুলের গল্প (১৯৮৮), বদ্ধভূমি (১৯৯৭)
মাহমুদুল হক : জীবন আমার বোন (১৯৭৬), অনুর পাঠশালা (১৯৭৩), নিরাপদ তন্দ্রা (১৯৭৪), খেলাঘরে (১৯৭৮), মাটির জাহাজ (১৯৯৬), যেখানে খঞ্জনা পাখি (১৯৭৩), প্রতিদিন একটি ররুমাল (১৯৯৪), অশরীরী (২০০৪)। কিশোর উপন্যাস: চিক্কোর কাবুক
মুহম্মদ জাফর ইকবাল : আকাশ বাড়িয়ে দাও, বিবর্ণ তুষার, উপন্যাস সমগ্র-১ (২০০৫), মহব্বত আলীর একদিন (২০০৬)
কিশোর উপন্যাস: হাত কাটা রবিন (১৯৮৬), দীপু নাম্বার টু (১৯৮৪), দুষ্টু ছেলের দল (১৯৬৮), আমার বন্ধু রাশেদ (১৯৯৪), টি রেক্সের সন্ধানে (১৯৯৪), জারুল চৌধুরীর মানিকজোড় (১৯৯৫), রাজু ও আগুনালির ভূত (১৯৯৬), স্কুলের নাম পথচারী (১৯৯৬), বুবনের বাবা (১৯৯৮), হাত কাটা রবিন (১৯৮৬), দীপু নাম্বার টু (১৯৮৪), দুষ্টু ছেলের দল (১৯৬৮), আমার বন্ধু রাশেদ (১৯৯৪), টি রেক্সের সন্ধানে (১৯৯৪), জাররুল চৌধুরীর মানিকজোড় (১৯৯৫), রাজু ও আগুনালির ভূত (১৯৯৬), স্কুলের নাম পথচারী (১৯৯৬), বুবনের বাবা (১৯৯৮)
রশীদ করীম : উত্তম পুরুষ (১৯৬১), প্রসন্ন পাষাণ (১৯৬৩), আমার যত গ্লানি (১৯৭৩), প্রেম একটি লাল গোলাপ (১৯৭৮), সাধারণ লোকের কাহিনী (১৯৮১), একালের রূপকথা (১৯৮১), শ্যামা (১৯৮৪), বড়ই নিঃসঙ্গ (১৯৮৫), মায়ের কাছে যাচ্ছি (১৯৮৯), চিনি না (১৯৯০), পদতলে রক্ত (১৯৯০), লাঞ্চবক্স (১৯৯৩)
রশীদ হায়দার : খাঁচায় (১৯৭৫), অসম বৃক্ষ (১৯৮২), অন্ধ কথামালা (১৯৮৭), নষ্ট জোছনায় এ কোন অরণ্য (১৯৮২), সাধ আহ্লাদ (১৯৮৫), অসমবৃক্ষ (১৯৮৭), মাবূহাই (১৯৮৮)
রাজিয়া খান : বটতলার উপন্যাস (১৯৫৮), অনুকল্প (১৯৫৯), প্রতিচিত্র (১৯৭৬), হে মহাজীবন (১৯৮৩), চিত্রকাব্য (১ম ও ২য় খন্ড) (১৯৮০), দ্রৌপদী (১৯৯৩), পাদবিক (১৯৯৮)
রাজিয়া মজিদ : তমসাবলয় (১৯৬৬), দিনান্তের স্বপ্ন (১৯৬৭), নক্ষত্রের পতন (১৯৮২), সেই তুমি (১৯৮৪), অশঙ্কিনী সুদর্শনা (১৯৮৪), দিনের আলো রাতের আঁধার (১৯৮৪), মেঘে জলতরঙ্গ (১৯৮৫), এই মাটি এই প্রেম (১৯৮৫), দাঁড়িয়ে আছি একা (১৯৮৭), অরণ্যে জনতা (১৯৮৭), শতাব্দীর সূর্যশিখা (১৯৮৭), সুন্দরম (১৯৮৮), জ্যোৎস্নায় শূন্য মাঠ (১৯৮৯), অন্তরলোকে জ্বলে জোনাকী (১৯৯৩), বৃষ্টিভেজা মুখ (১৯৯৪), ভালবাসার সেই মুখ (১৯৯৫), যুদ্ধ ও ভালবাসা (১৯৯৬)
রাবেয়া খাতুন : মধুমতী (১৯৬৩), রাজারবাগ শালিমারবাগ (১৯৬৯), ফেরারী সূর্য (১৯৭৫), মেহের আলী (১৯৮৫), অনন্ত অন্বেষা (১৯৬৭), ই ভরা ভাদর মাহ ভাদর (২য় সং. ১৯৯৫), সাহেব বাজার (১৯৬৯), মন এক শ্বেত কপোতী (১৯৬৫), অনেকজনের একজন (১৯৭৬), জীবনের আর এক নাম দিবস রজনী (১৯৮০), নীল নিশীথ, পাখি সব করে রব, বায়ান্ন গলির এক গলি (১৯৮৪), নীল পাহাড়ের কাছাকাছি (১৯৮৫), বাগানের নাম মালনিছড়া, এই বিরহকাল (১৯৯৫), রাবেয়া খাতুনের নির্বাচিত প্রেমের উপন্যাস (১৯৯৫), প্রিয় গুলশানা (১৯৯৭), শঙ্খ সকাল প্রকৃতি (২০০৫), উপন্যাস সমগ্র-১ (২০০৫), স্বপ্নে সংক্রামিত (২০০৬)
রাহাত খান : অমল ধবল চাকরি (১৯৮২), এক প্রিয়দর্শিনী (১৯৮৩), ছায়াদম্পতি (১৯৮৪), হে শূন্যতা (১৯৮৪), সংঘর্ষ (১৯৮৪), হে অনন্তের পাখি (১৯৮৯), মধ্যমাঠের খেলোয়াড় (১৯৯১), আকাক্সক্ষা, কয়েকজন, অগ্নিদাহ, গন্তব্যে (২০০৫)
রিজিয়া রহমান : উত্তর পুরুষ (১৯৭৭), বং থেকে বাংলা (১৯৭৮), একাল চিরকাল (১৯৮৪), সূর্য-সবুজ রক্ত (১৯৮১), ধবল জোৎস্না (১৯৮১), শিলায় শিলায় আগুন (১৯৮০), অলিখিত উপাখ্যান (১৯৮০), রক্তের অক্ষর (১৯৭৮), প্রেম আমার প্রেম (১৯৮৫), অরণ্যের কাছে (১৯৮০), ঝড়ের মুখোমুখি (১৯৮৬), একটি ফুলের জন্য (১৯৮৬), শুধু তোমাদের জন্য (১৯৮৮), হারুন ফেরেনি (১৯৯৪), হে মানব মানবী (১৯৮৯)
শওকত আলী : পিঙ্গল আকাশ (১৯৬৩), দক্ষিণায়নের দিন (১৯৭৬), কুলায় কালস্রোত (১৯৭৭), পূর্বরাত্রি পূর্বদিন (১৯৭৮), যাত্রা (১৯৭৬), অপেক্ষা (১৯৮৫), প্রদোষে প্রাকৃতজন (১৯৮৪), ওয়ারিশ (১৯৮৯), দলিল (২০০০), সম্বল (১৯৮৬), উত্তরের খেপ (১৯৯১), গন্তব্য অতঃপর (১৯৮৭), প্রেমকাহিনী, ভালবাসা কারে কয় (১৯৮৮), যেতে চাই (১৯৮৮), বাসর ও মধুচন্দ্রিমা (১৯৯০)
শওকত ওসমান : জননী (১৯৬১), বনীআদম (১৯৪৩), ক্রীতদাসের হাসি (১৯৬২), চৌরসন্ধি (১৩৭৫), জাহান্নম হইতে বিদায় (১৯৭১), নেকড়ে অরণ্য (১৯৭৩), দুই সৈনিক (১৯৭৩), জলাঙ্গী (১৯৭৪), পতঙ্গ পিঞ্জর (১৯৮৩), রাজা উপাখ্যান (১৯৭০), সমাগম (১৯৬৭), আর্তনাদ (১৯৮৫), রাজসাক্ষী (১৯৮৫), পিতৃপুরুষের পাপ (১৯৮৬), তারা দুইজন (১৯৫৮), পঞ্চসঙ্গী (১৯৭৫), জুজগগা (১৯৮৮)
শরীফ খান : মঙ্গল পূর্ণিমা (১৯৯২), শহীদ জনক (১৯৯৬), স্বপ্নলোকের ছবি (১৯৯৬), সোনালী দরজা (১৯৯৭), নজু ডাকাত ও গঙ্গা সাধু (১৯৯৬), মিথিলার সিঁথির আগুন (১৯৯৬), বনদানবের খপ্পরে (১৯৯৫), মেয়েটিকে ভূত ধরেছিল (১৯৯৪), ডিসেম্বরের আঠারো (১৯৯৭)
শহীদ আখন্দ : পান্না হলো সবুজ (১৯৬৪), পাখির গান বনের ছায়া (১৯৭০), দুদ- শান্তি (১৯৮৩), একদা এক বসন্তে (১৯৮৪), সেই পাখি (১৯৮৬), আপন সৌরভ (১৯৮৬), ভালোবাসায় বসবাস (১৯৮৭), নরাধম (১৯৮৪), এইখানে কখনো (১৯৮৫), আবার আসিব (১৯৮৮), কখন কে জানে (১৯৯৫)
শহীদুল জহির : সে রাতে পূর্ণিমা ছিল (১৯৯৫), জীবন ও রাজনৈতিক বাস্তবতা (১৯৮৮), মুখের দিকে দেখি (২০০৬)
শহীদুল্লা কায়সার : সারেং বৌ (১৯৬২), ও সংশপ্তক (১৯৬৫)
শওকত ওসমান (১৯৭১-১৯৯৮) : জননী (১৯৬১), বনীআদম (১৯৪৩), ক্রীতদাসের হাসি (১৯৬২), জাহান্নাম হইতে বিদায় (১৯৭১), নেকড়ে অরণ্য (১৯৭৩), দুই সৈনিক (১৯৭৩), জলাঙ্গী (১৯৭৪), পতঙ্গ পিঞ্জর (১৯৮৩), রাজা উপাখ্যান (১৯৭০), সমাগম (১৯৬৭), আর্তনাদ (১৯৮৫), রাজসাক্ষী (১৯৮৫), পিতৃপুররুষের পাপ (১৯৮৬), কিশোর উপন্যাস: তারা দুইজন (১৯৫৮), পঞ্চসঙ্গী (১৯৭৫), জুজগগা (১৯৮৮)
শাহজাহান চৌধুরী : সাদা পাখির পালক (১৯৮৬), যন্ত্রণার নদী (১৯৭৩)
শাহরিয়ার কবীর : ওদের জানিয়ে দাও (১৯৮৫)
কিশোর উপন্যাস : অন্যরকম আটদিন (১৯৯৩), একাত্তরের যীশু (১৯৮৫), পূবের সূর্য (১৯৭২), নুলিয়াছড়ির সোনার পাহাড় (১৯৭৬), হারিয়ে যাওয়া ঠিকানা (১৯৭৬), সীমান্তে সংঘাত (১৯৮৮), হানাবাড়ির রহস্য (১৯৮৯), নিকোলাস রোজারিওর ছেলেরা (১৯৮৯), পাথারিয়ার খনি রহস্য (১৯৮৯), বার্চ বনে ঝড় (১৯৯১), বহুরূপী (১৯৯১), রাজপ্রাসাদে ষড়যন্ত্র (১৯৯৩), কার্পিথিয়ানের কালো গোলাপ (১৯৯৪), অন্যরকম আট দিন (১৯৯৩), অনীকের জন্য ভালোবস (১৯৯৩), একাত্তরের পথে ধারে (১৯৯৪), লুসাই পাহাড়ের শয়তান (১৯৯৪), বাভারিয়ার রহস্যময় দূর্গ (১৯৯৪), আলোর পাখিরা (১৯৯৫), ঘাতকের সন্ধানে (১৯৯৫), মরুর শয়তান (১৯৯৫), রত্নেশ্বরীর কালো ছায়া (১৯৯৬), ভয়ঙ্করের মুখোমুখি (১৯৯৬)
শামসুদ্দীন আবুল কালাম : কাশবনের কন্যা (১৯৫৪), আলমনগরের উপকথা (১৯৫৫), মনের মতো ঠাঁই, যার সাথে যার (১৯৮৬), জায়জঙ্গলের (১৯৭৮), সমুদ্র বাসর (১৯৮৬), নবান্ন (১৯৮৭), কাঞ্চনগ্রাম (১৯৯৮)
শামসুর রাহমান : অক্টোপাস (১৯৮৩), অদ্ভুত আঁধার এক (১৯৮৫), নিয়ত মন্তাজ (১৯৮৫), এলো সে অবেলায় (১৯৯৪)
শাহীন আখতার : পালাবার পথ নেই (২০০০), তালাশ (২০০৪)
সত্যেন সেন : অভিশপ্ত নগরী (১৯৬৭), পাপের সন্তান (১৯৬৯), পদচিহ্ন (১৩৭৪), উত্তরণ (১৯৭০), বিদ্রোহী কৈবর্ত (১৩৭৬), এ কূল ভাঙে ও কূল গড়ে (১৯৭১), আলবেরুনী (১৩৭৬), কুমারজীব (১৯৬৯), পুরুষমেধ (১৯৬৯), সেয়ানা (১৩৭৫), ভোরের বিহঙ্গী (১৩৬৬ ব.), রুদ্ধদ্বার মুক্তপ্রাণ (১৩৭৩), সাত নম্বর ওয়ার্ড (১৩৭৬), মা (১৩৭৭), অপরাজেয় (১৩৭৭) পান্ডুলিপি
সরদার জয়েনউদ্দীন : আদিগন্ত (১৩৬৫), পান্নামোতি (১৩৭১), নীল-রঙ-রক্ত (১৩৭২), বিধ্বস্ত রোদের ঢেউ (১৯৭৫), বেগম শেফালী মির্জা (১৯৬৮), শ্রীমতী ক ও খ শ্রীমান তালেব আলী (১৯৭৩)।
সামস রাশীদ : মনপ্রসূন (১৯৮২), উপর উপকূলে (১ম খন্ড ১৯৬৯, ২য় খন্ড ১৯৭০), নীলাঞ্জনা (১৯৭১), প্রাণবসন্ত (১৯৭৩), হৃদয় উপবনে (১৯৭৪), পঞ্চালিকা (১৯৭৬), সিন্ধু বাঁরোয়া (উপল উপকূলের ৩য় খন্ড) ১৯৭৭), মনকোরক (১৯৮১), ক্যামেলিয়া মিনেনমিস (১৯৮৫), পর্বত বুরঞ্জী (১৯৯০), প্রীতমপুর (১৯৯০)
সিকান্দার আবু জাফর : মাটি আর অশ্রু (১৯৪২), পূরবী (১৯৪৪), নতুন সকাল (১৯৪৫)
সুবোধ লাহিড়ী : ভস্তার বিল (১৯৬৯)
সেলিনা হোসেন : যাপিত জীবন (১৯৮১), নিরন্তর ঘণ্টাধ্বনি (১৯৮৭), গায়ত্রী সন্ধ্যা (১৯৯৪-১৯৯৬), হাঙর নদী গ্রেনেড (১৯৭৬), নীল ময়ূরের যৌবন (১৯৮৩), চাঁদবেনে (১৯৮৪), পোকামাকড়ের ঘরবসতি (১৯৮৬), কাঁটাতারে প্রজাপতি (১৯৮৯), কালকেতু ও ফুলরা (১৯৯২), পদশব্দ (১৯৮৩), জলোচ্ছ্বাস (১৯৭২), মগ্ন চৈতন্যে শিস (১৯৭৯), ক্ষরণ (১৯৮৮), খুন ও ভালোবাসা (১৯৯০), উত্তর সারথী (১ম উপন্যাস), যুদ্ধ (১৯৯৮), ভালোবাসা প্রীতিলতা (১৯৯২), টানাপড়েন (১৯৯৪), দীপান্বিতা (১৯৯৭), ঘুমকাতুরে ঈশ্বর (২০০৪), মর্গের নীল পাখি (২০০৫)
সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ্ : লালসালু (১৯৪৮), চাঁদের অমাবস্যা (১৯৬৪), কাঁদো নদী কাঁদো (১৯৬৮)
সৈয়দ মুজতবা আলী : অবিশ্বাস্য (১৯৫৪), শবনম (১৯৬০), শর্হ-ইয়ার (১৯৬৯), তুলনাহীনা (১৯৭৪)
সৈয়দ শামসুল হক : অনুপম দিন (১৯৯২), নীলদংশন (১৯৮১), নিষিদ্ধ লোবান (১৯৮১), মৃগয়ায় কালক্ষেপ (১৯৮৬), আয়না বিবির পালা (১৯৮৬), এক মহিলার ছবি (১৯৫৯), দেয়ালের দেশ (১৯৫৯), অচেনা (১৯৬২), অচিন্ত্য পূর্ণিমা (১৯৬২), জনক ও কালোকফি (১৯৬২), সীমানা ছাড়িয়ে (১৯৬৪), খেলারাম খেলে যা (১৯৭৩), দূরত্ব (১৯৮১), ত্রাহি (১৯৮২), অন্য এক আলিঙ্গন (১৯৮২), দ্বিতীয় দিনের কাহিনী (১৯৮৪), স্মৃতিমেধ (১৯৮৬), স্তব্ধতার অনুবাদ (১৯৮৬), এক যুবকের ছায়াপথ (১৯৮৭), কয়েকটি মানুষের সোনালী যৌবন (১৯৮৯), স্বপ্ন সংক্রান্ত (১৯৮৯), না, যেওনা (১৯৮৯), বৃষ্টি ও বিদ্রাহীগণ (১ম খন্ড ১৯৮৯, ২য় খন্ড-১৯৯০), বারো দিনের শিশু (১৯৮৯), বনবালা কিছু টাকা ধার নিয়েছিল (১৯৮৯), ত্রাহি (১৯৮৯), তুমি সেই তরবারি (১৯৮৯), কয়েকটি মানুষের সোনালী যৌবন (১৯৮৯), নির্বাসিতা (১৯৮৭), শ্রেষ্ঠ উপন্যাস (১৯৯০), নির্বাসিতা (১৯৯০), মেঘ ও মেশিন (১৯৯১), ইহা মানুষ (১৯৯১), কালধর্ম (১৯৯২), আমি বাসি তুমি বাসোতো (১৯৯৩), মহাশূন্যে পরাণ মাস্টার (১৯৯০), দ্বিতীয় দিনের কাহিনী (১৯৯০), বালিকার চন্দ্রযান (১৯৯০), জেসমিন রোড (১৯৯২), চোখবাজী (১৯৯৪), টানটান (১৯৯৪), অন্তর্গত (১৯৯৫), আলোর জন্য (১৯৯৫), বুকঝিম, এক ভালোবাসা (১৯৯৬), একমুঠো জন্মভূমি (১৯৯৭), বৃষ্টি ও বিদ্রাহীগণ (১৯৯৭), যৌবন (১৯৯৭), শঙ্খলাগা যুবতী ও চাঁদ (১৯৯৮), নারীরা (১৯৯৯), বাস্তবতার দাঁত ও করাত, (১৯৯৯), উড়ে যায় মালতী পরী (২০০৫)
হরিপদ দত্ত : ঈশানে অগ্নিদাহ (১৯৮৬), অন্ধকূপে জন্মোৎসব (১৯৮৭), অজগর ১ম ও ২য় খন্ড ১৯৮৯ এবং ১৯৯১ সনে, উপন্যাস সমগ্র (২০০৫), মোহাজের (২০০৬), পিতৃহত্যার রাত ও অগ্নিবিন্দু (২০০৭), চিম্বুক পাহাড়ের জাতক (২০০৮), জলপুত্র (২০০৮)
হাসনাত আবদুল হাই : তিমি (১৯৮১), আমার আততায়ী (১৯৮০), সুলতান (১৯৯১), সুপ্রভাত ভাললবাসা (১৯৭৭), মহাপুরুষ (১৯৮২), মোরেলগঞ্জ সংবাদ (১৯৯৫), বাবুই (১৯৯৭), যুবরাজ, (১৯৮০), সাফারি (১৩৯৯), সাতজন (১৯৯৯), প্রভু (১৯৮৬), সময় (১৯৯১), একজন আরজ আলী (১৯৯৫), নভেরা (১৯৯৫), বাইরে একজন (১৯৯৫), হাসান ইদানীং (১৯৯৫), সোয়ালো (১৯৯৬), সিকস্তি (১৯৯৭), ইন্টারভিউ (১৯৯৭), বাবুই সুনীতি (১৯৯৭)
হুমায়ুন আজাদ : সবকিছু ভেঙ্গে পড়ে (১৯৯৫), মানুষ হিসেবে আমার অপরাধসমূহ (১৯৯৬), যাদুকরের মৃত্যু (১৯৯৬), শুভব্রত ও তার সম্পর্কিত সুসমাচার (১৯৯৭), রাজনীতিবিদগণ (১৯৯৮), পাক সার জমিন সাদ বাদ (২০০৪), ছাপ্পান্ন হাজার বর্গমাইল (১৯৯৪)
হুমায়ূন আহমেদ : নন্দিত নরকে (১৯৭৩), শ্যামল ছায়া (১৯৭৪), নির্বাসন (১৯৭৪), সৌরভ (১৯৮২), আগুনের পরশমনি (১৯৮৬), শঙ্খনীল কারাগার (১৯৭৩), এইসব দিনরাত্রি (১৯৮৬), নক্ষত্রের রাত (১৯৮৭), সাজঘর (১৯৮৯), তোমাদের জন্য ভালবাসা, অচিনপুর, অন্যদিন (১৯৭৪), ফেরা (১৯৮৬), সবাই গেছে বনে (১৯৮৪), তোমাকে (১৯৮৪), একা একা (১৯৮৫), অমানুষ (১৯৮৫), আমার আছে জল (১৯৮৫), সূর্যের দিন (১৯৮৫), প্রথম প্রহর (১৯৮৫), দেবী (১৯৮৫), অরণ্য (১৯৮৭), নক্ষত্রের রাত (১৯৮৭), দূরে কোথায় (১৯৮৭), আকাশ জোড়া মেঘ (১৯৮৮), অপরাহ্ন (১৯৮৮), বাসর (১৯৮৯), দ্বৈরথ (১৯৮৯), রজনী (১৯৮৯), অন্ধকারের গান (১৯৮৯), সমুদ্র বিলাস (১৯৯১), জনম জনম (১৯৯০), ময়ূরাক্ষী (১৯৯০), গৌরীপুর জংশন (১৯৯০), অয়োময় (১৯৯০), কোথাও কেউ নেই (১৯৯০), দারুচিনি দ্বীপ (১৯৯১), পাখি আমার একলা পাখি (১৯৯২), মিসির আলী অমীমাংসিত রহস্য (১৯৯২), হিমু (১৯৯৩), জলজোছনা (১৯৯৩), শ্রাবণ মেঘের দিন (১৯৯৪), পেন্সিলে আঁকা পরী (১৯৯৫), শুভ্র (২০০০), জোছনা ও জননীর গল্প (২০০৪), লীলাবতী (২০০৫), লিলুয়া বাতাস (২০০৬)
হুমায়ূন মালিক : দ্রোহী উত্তরসূরি (২০০৫), নপুংসকনামা (২০০৭)


দয়া করে পোস্টটি শেয়ার করুন...

© BengaliGrammar.Com
Maintenance by BengaliGrammar.Com