সোমবার, ২০ মে ২০১৯, ০৪:৩৮ অপরাহ্ন

হরপ্রসাদ শাস্ত্রী

প্র : হরপ্রসাদ শাস্ত্রীর জন্মসন কত?
উ : ৬ই ডিসেম্বর, ১৮৫৩।
প্র : তাঁর জন্মস্থান কোথায়?
উ : নৈহাটি, পশ্চিমবঙ্গ।
প্র : তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ছিলেন?
উ : বাংরা ও সংস্কৃত বিভাগের (১৮ই জুন ১৯২১)।
প্র : তাঁর অমর কীর্তি কী?
উ : তিনি বাংলা ভাষায় প্রথমগ্রন্থ চর্যাপদ নেপালের রাজদরবার গ্রন্ধাগার থেকে উদ্ধার করেন।
প্র : তিনি কী নামে চর্যাপদ সম্পাদনা ও প্রকাশ করেন?
উ : হাজার বছরের পুরান বাঙ্গালা ভাষায় বৌদ্ধগান ও দোহা।
প্র : কোন প্রতিষ্ঠান থেকে, কত সালে প্রকাশ পায়?
উ : বঙ্গীয় সাহিত্য পরিষদ থেকে ১৩২৩ বঙ্গাব্দে (১৯১৬)।
প্র : তাঁর উল্লেখযোগ্য গ্রন্থের নাম কী?
উ : বাল্মীকির জয় (১৮৮১), মেঘদূত (১৯০২), কাঞ্চন মালা (উপন্যাস, ১৯১৬), হাজার বছরের পুরান বাঙ্গালা ভাষার বৌদ্ধগান ও দোহা (১৯১৬), েিবণের মেয়ে (উপন্যাস, ১৯২০), প্রাচীন বাংলার গৌরব (১৯৪৬), বৌদ্ধধর্ম (১৯৪৮)।
প্র : ‘বেণের মেয়ে’ উপন্যাসের পরিচয় দাও।
উ : ‘বেণের মেয়ে’ (১৯১৯) উপন্যাসের চরিত্রগুলি প্রায় সবই কাল্পনিক কিন্তু এর পরিবেশ ঐতিহাসিক। দশম-একাদশ শতাব্দীর বাংরাদেশ, বৌদ্ধধর্মের অবসান ও হিন্দুধর্মের পুনরুত্থানের কালে সপ্তগ্রামের এক বৌদ্ধ পরিবারকে নিয়ে কাহিনিটি রচিত হয়েছে। লেখক নিপুণভাবে অতীতযুগকে পুনরুজ্জীবিত করেছেন।
প্র : তিনি একাধারে কোন কোন বিষয়ে প-িত ছিলেন?
উ : তিনি একাধারে শিক্ষাবিদ, সাহিত্যিক, বহুভাষাবিদ, দার্শনিক, প-িত, প্রতœতত্ত্ববিদ ও ঐতিহাসিক।
প্র : তিনি কী উপাধি লাভ করেন?
উ : ১৮৯৮-তে ‘মহামহোপাধ্যায়’ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক ডি.লিট (১৯২৭)।
প্র : তাঁর মৃত্যুতারিখ কত?
উ : ১৭ই নভেম্বর ১৯৩১।


দয়া করে পোস্টটি শেয়ার করুন...

© BengaliGrammar.Com
Maintenance by BengaliGrammar.Com