সোমবার, ২০ মে ২০১৯, ০৪:৩৮ অপরাহ্ন

৩৩তম বিসিএস পরীক্ষার বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর

১। চর্যাপদ কোন ছন্দে লেখা ?
ক. অক্ষরবৃত্ত, খ. মাত্রাবৃত্ত, গ. স্বরবৃত্ত, ঘ. অমিত্রাক্ষর ছন্দ, উত্তর: ক

প্রাসঙ্গিক তথ্য: চর্যার ছন্দকে সরাসরি কোন ভাগে ফেলা কষ্টকর। কেউ একে ষোলোমাত্রার পাদাকুলক, কেউ পয়ার ত্রিপদী বা অক্ষরবৃত্তের ছন্দে রচিত বলে মনে করেন।

২। কবিওয়ালা ও শায়েরের উদ্ভব ঘটে কখন ?
ক. আঠারো শতকের শেষার্ধে ও উনিশ শতকের প্রথমার্ধে, খ. ষোড়শ শতকের শেষার্ধে ও সপ্তদশ শতকের প্রথমার্ধে, গ. সপ্তদশ শতকের শেষার্ধে ও আঠারো শতকের প্রথমার্ধে, ঘ. উনিশ শতকের শেষার্ধে ও বিংশ শতকের প্রথমার্থে, উত্তর: ক

প্রাসঙ্গিক তথ্য: ১৭৬০ খ্রিষ্টাব্দে মধ্য যুগের সর্বশেষ কবি রায়গুণাকর ভারতচন্দ্রের মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গে বাংলা কাব্যের ইতিহাসে মধ্যযুগের অবসান ঘটে। ১৮৬০ সালে আধুনিকতার বিকাশ ঘটে। ১৭৬০-১৮৬০ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত ‘অবক্ষয় যুগ’ বা ‘যুগসন্ধিক্ষণ’ বলা হয়েছে। অবক্ষয় যুগ’ বা যুগসন্ধিক্ষণের কালে হিন্দুদের মধ্যে কবিগান ও মুসলমানদের মধ্যে পুঁথি সাহিত্যের উদ্ভব ঘটে। হিন্দু সমাজে কবিগানের রচয়িতাদের কবিওয়ালা এবং মুসলমান সমাজে মিশ্র ভাষারীতির পুঁথি রচয়িতাদের শায়ের বলা হত।

৩। কবি গানের প্রথম কবি কে?
ক. গোঁজলা গুঁই, খ. হরু ঠাকুর, গ. ভবানী ঘোষ, ঘ. নিতাই বৈরাগী, উত্তর: ক

প্রাসঙ্গিক তথ্য: কবিগান দুইপক্ষের মধ্যে কবিলড়াই । বিতর্কের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হত এই গান। কবিওয়ালারা মূলত ছিলেন গায়ক, তাঁর অর্থের বিনিময়ে জনগণের মনোরঞ্জন করতেন।

কবিওয়ালাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছেন- গোঁজলা গুঁই : তিনি কবিগানের আদিগুরু বলে পরিচিত। ভবানী বেনে, ভোলা ময়রা, হরু ঠাকুর, কেষ্ট মুচি, এন্টনি ফিরিঙ্গি, রামবসু, রাসু, নিতাইবৈরাগী, শ্রীধর কথক, নীলমণি পাটনী, বলরাম বৈষ্ণব, রামসুন্দর স্যাকরা নামও বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য।

৪। ‘কেন পান্থ ক্ষান্ত হও হেরি দীর্ঘ পথ’ কার লেখা?
ক. কৃষ্ণচন্দ্র মজুমদার, খ. ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত, গ. কামিনী রায়, ঘ. যতীন্দ্র মোহন বাগচী, উত্তর: ক

৫। কোন বানানটি শুদ্ধ নয়?
ক. দরিদ্রতা, খ. উপযোগিতা, গ. শ্রদ্ধাঞ্জলি, ঘ. উর্দ্ধ, উত্তর: ঘ

*উর্দ্ধ এর শুদ্ধ বানান ঊর্ধ্ব।

৬। গৃহী শব্দের বিপরীতার্থক শব্দ-
ক. সংসারী, খ. সঞ্চয়ী, গ. সংস্থিতি, ঘ. সন্ন্যাসী, উত্তর: ঘ

৭। কোন বাক্যটি শুদ্ধ?
ক. তোমার গোপন কথা শোনা আমার পক্ষে সম্ভব নয়, খ. দরিদ্রতা আমাদের প্রধান সমস্যা, গ. সলজ্জিত হাসি হেসে মেয়েটি উত্তর দিল, ঘ. সর্ব বিষয়ে বাহুল্যতা বর্জন করা উচিত, উত্তর: খ

প্রাসঙ্গিক তথ্য : নিচে বাক্যগুলোর শুদ্ধরূপ দেওয়া হল-
অশুদ্ধ: তোমার গোপন কথা শোনা আমর পক্ষে সম্ভব নয়।
শুদ্ধ: তোমার গোপনীয় কথা শোনা আমার পক্ষে সম্ভব নয়।
অশুদ্ধ: সলজ্জিত হাসি হেসে মেয়েটি উত্তর দিল।
শুদ্ধ: সলজ্জ হাসি হেসে মেয়েটি উত্তর দিল।
অশুদ্ধ: সর্ব বিষয়ে বাহুল্যতা বর্জন করা উচিত।
শুদ্ধ: সর্ব বিষয়ে বাহুল্য বর্জন করা উচিত।

৮। ‘তুমি আসবে বলে হে স্বাধীনতা
সখিনা বিবির কপাল ভাঙল’-এটি কোন বাক্যে?
ক. সরল, খ. মিশ্র ও জটিল, গ. যৌগিক, ঘ. সংযুক্ত, উত্তর: খ

প্রাসঙ্গিক তথ্য: যে বাক্যে একটি প্রধান খ-বাক্যে ও এক বা একাধিক আশ্রিত বাক্য পরস্পর সাপেক্ষে ব্যবহৃত হয়, তাকে মিশ্র বা জটিল বাক্য বলে। এখানে, তুমি আসবে বলে হে স্বাধীনতা আশ্রিত বাক্য এবং সখিনা বিবির কপাল ভাঙল প্রধান খ- বাক্য।

৯। কোনটি ‘অগ্নি’-র সমার্থক শব্দ নয়?
ক. পাবক, খ. বৈশ্বানর, গ. সর্বশুচি, ঘ. প্রজ্জলিত, উত্তর: ঘ

প্রাসঙ্গিক তথ্য: ‘অগ্নি’-র সমার্থক শব্দ পাবক, বৈশ্বানর, আগুন, বিভাবসু, বহ্নি, অনল, হুতাশন, শিখা, দহন, কৃশানু, সর্বভুক, সর্বশুচি প্রভৃতি।

১০। কোনটি সঠিক বানান?
ক. নিশিথিনী, খ. নীশিথিনী, গ. নিশীথিনী, ঘ. নিশিথিনি, উত্তর: গ

১১। কোনটি ‘কোলন’?
ক. ;   খ. :   গ. =   ঘ. “ ”   উত্তর: খ

*ব্যাকরণ অংশে বিরাম চিহ্ন লক্ষ করুণ।

১২। বাংলা সাহিত্যের অন্যতম বিশিষ্ট পত্রিকা ‘কল্লোল’ কত সালে প্রথম প্রকাশিত হয়?
ক. ১৯২৩ সালে, খ. ১৯২৪ সালে, গ. ১৯২৫ সালে, ঘ. ১৯২৭ সালে

প্রাসঙ্গিক তথ্য: ‘কল্লোল’ পত্রিকা ১৯২৩ ( বাংলা ১৩৩০) সালে প্রকাশিত হয়।এই পত্রিকার প্রকাশ কাল থেকেই ত্রিশের আন্দোলন বলা হয়। পত্রিকাটির প্রতিষ্ঠা সম্পাদক ছিলেন দীনেশ চন্দ্র দাশ।

১৩। কোন গ্রন্থটি সুকান্ত ভট্টাচার্য কর্তৃক রচিত?
ক. হরতাল, খ. পালাবদল, গ. উত্তীর্ণ পঞ্চাশে, ঘ. অম্বিষ্ট স্বদেশ, উত্তর: ক

প্রাসঙ্গিক তথ্য: কিশোর কবি সুকান্ত ভট্টাচার্যের বিখ্যাত গ্রন্থ ‘ছাড়পত্র’, ঘুম নেই, পূর্বাভাস, অভিযান, হরতাল এবং গীতিগুচ্ছ।

১৪। ‘ঢাকের কাঠি’ বাগধারার অর্থ কি?
ক. কপট ব্যক্তি, খ. ঘনিষ্ট সম্পর্ক, গ. হতভাগ্য, ঘ. মোসাহেব, উত্তর: ঘ

১৫। বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের ‘বিষবৃক্ষ’ উপন্যাসের চরিত্র কোনটি?
ক. কুন্দনন্দিনী, খ. শ্যামনন্দরী, গ. বিমলা, ঘ. রোহিনী, উত্তর: ক

প্রাসঙ্গিক তথ্য: বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের বিখ্যাত সামাজিক উপন্যাস বিষবৃক্ষ। কুন্দনন্দিনী এবং নগেন্দ্রনাথ উপন্যাসটির দুটি উল্লেখযোগ্য চরিত্র।

১৬। কোন বানানটি শুদ্ধ?
ক. পিপিলিকা, খ. পিপীলিকা, গ. পীপিলিকা, ঘ. পিপিলীকা, উত্তর: খ

১৭। গীতাঞ্জলির ইংরেজি অনুবাদ সম্পাদনা করেছেন-
ক. এজরা পাউন্ড, খ. টি. এস এলিয়ট, গ. ডব্লিউ. বি. ইয়েটস, ঘ. কীটস্, উত্তর: গ

প্রাসঙ্গিক তথ্য: রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ‘গীতাঞ্জলি’ কাব্যগ্রন্থের জন্য ‘নোবেল পুরস্কার’ পান। ‘গীতাঞ্জলি’র ইংরেজি অনুবাদের নাম Songs offering। এটি ইংরেজীতে অনুবাদ করেন W. B. Yeates।

১৮। ‘The Origin and Development of Bengali Language’ গ্রন্থটি রচনা করেছেন-
ক. ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ, খ. ড. সুনীতি কুমার চট্টোপাধ্যায়, গ. হর প্রসাদ শাস্ত্রী, ঘ. স্যার জর্জ গ্রিয়ারসন, উত্তর: খ


দয়া করে পোস্টটি শেয়ার করুন...

© BengaliGrammar.Com
Maintenance by BengaliGrammar.Com